আজ বুধবার, ৩রা জুন, ২০২০ ইং, ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এই দুঃসময়ে নিজেকে জাহির নয়, অসহায়ের পাশে দাঁড়ানোই কাম্য

নজরুল ইসলাম জুলু: বর্তমানে বাংলাদেশসহ গোটাবিশ্বই যে ভয়াবহ বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তা কারোরই অজানা নেই। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও চালছে অঘোষিত ‘লকডাউন’। এহেন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন বিস্তারিত...

সরকারি ত্রাণ তহবিলের সুষ্ঠু বণ্টন সুনিশ্চিত করুন

নজরুল ইসলাম জুলু: দশদিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই সবচেয়ে বেশি বিপাকে পরেছেন খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষ। দেশের এই ক্রান্তিকালে সরকারি-বেসরকারি, ব্যক্তিগত প্রচেষ্টা অর্থাৎ সব মহল থেকেই যথাসাধ্য চেষ্টা বিস্তারিত...

করোনা: আসুন আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হই

নজরুল ইসলাম জুলু: সারা বিশ্ব বর্তমানে ‘করোনাভাইরাস’ আতঙ্কে ভীতসন্ত্রস্ত। এখন সকল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুই হচ্ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। মানুষকে সচেতন করতে চারিদিকে যেমন প্রচারণা চলছে। তেমনি তেমনি করোনা নিয়ে অসত্য ও বিস্তারিত...

“পুলিশ সকল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু”

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: বাংলাদেশের জনগন আর কিছু না চিনলেও একবাক্যে থানা ও পুলিশকে নিয়ে চিনতে দেরি হয়না।পুলিশ ও থানা জনগণের আশা আকাংখার প্রথম একটি ধাপ বলা চলে।মানুষের জন্ম থেকে বিস্তারিত...

“আমার ভাবনায় পুলিশ কেমন ও জনগন পুলিশকে নিয়ে কিভাবে”

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: পুলিশ নিয়ে আমি বা পুলিশ বাহিনী কি ভাবে সেটা বড় কথা নয়।পুলিশকে নিয়ে জনগণ কি ভাবে সেটাই বড় কথা।তার অন্যতম কারন হলো, জনগণের ট্যাক্সের টাকায় পুলিশ বিস্তারিত...

ভারত কি বাংলাদেশের প্রত্যাশা পূরণ করবে না?

বিভুরঞ্জন সরকার: প্রকাশ্যে স্বীকার করা না হলেও সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কে সম্ভবত কিছুটা টানাপড়েন দেখা দিয়েছে। পরপর ভারত সফরের তিনটি কর্মসূচি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বাতিল করা হয়েছে। প্রথমে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিল্লি সফর বিস্তারিত...

নস্টালজিয়াঃ মায়ার বাধন -১৬

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: ১৯৯৮ সালের একটি ঘটনা যা আজও স্মৃতিপটে ভেসে বেড়ায়।১৯৮৮ সালের বাবার চাকুরির পরিসমাপ্তি ঘটে। তারপর থেকে আমার বাসাতেই অধিকাংশ সময় থাকতেন।আবার যখন মন চাইতো কিছুদিনের জন্য বিস্তারিত...

নস্টালজিয়াঃ মায়ার বাধন -১৫

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: চাকুরী জীবনে বাবাকে দেখেছি জৌলুশপূর্ণ জীবনযাপন করতে।তিনি নিজেও টিপটিপ থাকতেন এবং আমাদেরকেও সেভাবে রাখতেন।দামি কাপড়, দামী জুতা,স্যুট-কোট, টাই ব্যাবহার করতেন।আমাদেরকেও দামি কাপড়, জুতা ইত্যাদি কিনে দিতেন।এক বিস্তারিত...

নস্টালজিয়াঃ মায়ার বাধন -১৪

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: স্মৃতিপটে দুজনাকে নিয়ে আলোচনা না করলেই নয়।সেই দুই শ্রদ্ধেয় মানব মানবী আর কেউ নয়।দাদা এবং দাদী।বাবার কাছে তাদের সম্পর্কে যা জানার জেনেছি।দাদীকে জীবিত পেয়ে কিছু নিজেই বিস্তারিত...

নস্টালজিয়াঃ মায়ার বাধন -১৩

মোঃ মোস্তফা হারুন বরেন্দী: এখনকার দিনের মত আমাদের বাবা মা কখনোই স্কুলে আনা নেয়া করেন নি।এখনকার বাবা মা অতি সচেতন। তারা সন্তানকে একা একা স্কুলে পাঠান না।স্কুলে দিয়ে এবং নিয়ে বিস্তারিত...

Download our Mobile Apps Today