ঢাকাশনিবার , ২ ডিসেম্বর ২০১৭
                     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকার রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কুটনৈতিকভাবে ব্যর্থ: মোশাররফ

admin
ডিসেম্বর ২, ২০১৭ ৩:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

খবর২৪ঘন্টা ডেস্ক: রোহিঙ্গা সংকট স্থায়ীভাবে সমাধান হোক সরকার নিজেই তা চায় না বলে মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।
শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের হলরুম এক আলোচনা সভায় তিনি এসকল কথা বলেন।
খন্দকার মোশাররফ বলেন, সরকার রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কুটনৈতিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে। রোহিঙ্গা সংকট স্থায়ীভাবে সমাধান হোক সরকার নিজেই তা চায় না। তার কারণ বাংলাদেশে এ পর্যন্ত কত লক্ষ রোহিঙ্গা এসেছে সরকার এখন পর্যন্ত নির্দিষ্টভাবে বলতে পারে নাই। কখনো বলেন ৩ লক্ষ আবার কখনো বলে ১০ লক্ষ। বাংলাদেশে এই পর্যন্ত কত রোহিঙ্গা এসেছে সুনির্দিষ্টভাবে তার তালিকা প্রকাশে ব্যর্থ হয়েছে সরকার।
তিনি বলেন, সরকার রোহিঙ্গা প্রসঙ্গ জিইয়ে রেখে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছে। সরকার যদি রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান চাইতো তাহলে সরকার কুটনৈতিকভাবে এতদিন অনেকটা সমাধানের পর্যায় খুঁজতে পারতো। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্বের প্রায় ১২৭টি দেশ এগিয়ে এসেছে। শুধু সরকার প্রতিবেশী দেশ যাদেরকে বন্ধু মনে করে তারা জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশের পক্ষে ভোট দেওয়া থেকে ভারত বিরত থাকে। বিরত থাকার মধ্য দিয়েই প্রমাণ করে ভারত সরকার বাংলাদেশের রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তরিক নয়। ইতিমধ্যে চীন ও রাশিয়ার সাথেও সরকার কুটনৈতিকভাবে সংকট সমাধানে ফলপ্রসু কোন আলোচনা করতে পারে নাই। এ রোহিঙ্গারাই এক সময় বাংলাদেশের জন্য একটি বোঝা হয়ে দাঁড়াবে বলে মনে করেন তিনি।
ড. মোশাররফ হোসেন, একাদশ সংসদ জাতীয় নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনে কোনদিন বিএনপি মানবে না। নির্বাচন দিতে হবে নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন সরকারের পক্ষেই কাজ করেছে। বাংলাদেশে কোন নির্বাচন আর শেখ হাসিনার অধীনে হতে দেওয়া হবে না এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আন্দোলনের মাধ্যমেই বাধ্য করা হবে।
আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

 

খবর২৪ঘন্টা/নই

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।