আজ বুধবার, ৬ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ২২শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বড়াইগ্রামে দশম শ্রেনীর ছাত্রী নিখোঁজ

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে সম্পা খাতুন (১৬) নামের দশম শ্রেনীতে পড়ুয়া মেয়ে নিখোঁজ হয়েছে বলে জানা গেছে। নিখোঁজ সম্পা খাতুন উপজেলার মাঝগাঁও ইউনিয়নের বাহিমালী গ্রামের মজিবর রহমানের মেয়ে।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার (০৫ অক্টোবর) সকাল ০৯.০০ ঘটিকার সময় প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় দশম শ্রেনীর ছাত্রী সম্পা খাতুন। পরে প্রাইভেট পড়ার সময় পেরিয়ে গেলেও বাড়িতে না ফিরলে পরিবারের লোকজন হতাশ হয়ে খোজাখুজি শুরু করে, খোজাখুজির এক পর্যায়ে না পেলে প্রাইভেট মাষ্টারের বাড়িতে গিয়ে খোজ নিয়ে দেখে সম্পা খাতুন প্রাইভেট পড়তেই যায়নি। তখন পরিবারের লোকজন হতাশ হয়ে পরে এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অবগত করেন।

হঠাৎ মেয়ের বাবা মজিবরের মোবাইলে সন্ধার দিকে একটি অপরিচিত মোবাইল নম্বর থেকে একটি কল, সেই কলে একটি ছেলে নাম গোপন করে বলেন আপনার মেয়ে আমাদের কাছে আছে, এখানে এসে নিয়ে যান। মেয়ের বাবা পরিচয় জানতে চাইলে ছেলেটি তার গ্রাম দাশগ্রাম, নাম সাগর ও তার বাবার নাম ইউছুফ প্রামানিক বলে কল কেটে দেয়। পরে পরিবারের লোকজন মোবাইলে দেওয়া স্থান দাশগ্রামে গিয়ে কল করলে নম্বর বন্ধ পায় ও মোবাইলে দেওয়া পরিচয় মিথ্যা বলে প্রমানিত হয়। মেলেনি কোনো সাগর নামের ছেলে। পরিশেষে ব্যাপারটি বেশ রহশ্যজনক মনে হওয়ায় জনপ্রতিনিধিদের পরামর্শে মেয়ের বাবা বড়াইগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, সম্পা খাতুন নিখোঁজের বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ হয়েছে। অতিদ্রæত আসামীকে খুঁজে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

খবর২৪ঘণ্টা/ জেএন


Download our Mobile Apps Today