ঢাকামঙ্গলবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৭
                     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তানোরে বীজ কিনে প্রতারিত কৃষক, ক্ষতিপূরণের  দাবি 

admin
ডিসেম্বর ১২, ২০১৭ ৭:৩৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

তানোর প্রতিনিধি :

রাজশাহীর জেলা বিভিন্ন বাজারে গোদাগাড়ীর সাজ্জাদ-হাসান সীডের নিম্নমানে বোরো বীজ কেনে প্রতারিত হয়েছেন কৃষকেরা। চলতি মৌসুমে বীজ তলায় বীজ বোপন করে নিম্নমানের বীজ হওয়াই বীজে টেক নেয়নি। বীজের ক্ষতিপূরণের দাবিতে এক সপ্তহের বেশি সময় ধরে কৃষকেরা সাজ্জাদ-হাসান সীড ও স্থানীয় ডিলারদের কাছে ঘুরলেও তারা কোন প্রকার সহযোগিতা করছেনা। এমন অবস্থা ফুসে উঠেছেন কৃষকেরা।

 

মঙ্গলবার সকালে তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা এলাকার প্রায় ২৫-৩০ জন কৃষক স্থানীয় বীজ ডিলারের কাছে বীজের ক্ষতিপূরণ চান। তারা ক্ষতিপূরণ দিতে না চাইলে কৃষকেরা একজোট হয়ে মুন্ডুমালা বাজারের সাজ্জাদ-হাসান সীডের খালি ব্যাগ হাতে রাস্তায় দাড়িয়ে মানববন্ধনসহ প্রতিবাদ জানান।

 

রাজশাহীর তানোর-গোদাগাড়ী উপজেলা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার শত শত কৃষক এবার বীজ কেনে প্রতারিত হয়েছে। প্রতারিত কৃষকেরা স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তা ও বীজ ডিলারদের অভিযোগ করেও কোন ফল পাচ্ছেনা বলে জানান কৃষকরা। এলাকার অনেক কৃষকের বীজ না হওয়াই বোরো আবাদ নিয়ে অনিশ্চতা দেখা দিয়েছে। সেই সাথে ক্ষোভ বাড়ছে কৃষকের মাঝে।

 

ক্ষতিগস্থ কৃষকেরা জানান, সাজ্জাদ ও হাসান সীড এর বীজ বাজার থেকে ১০ কেজি ওজনের ব্যাগ ৬০০ টাকা করে কেনে বীজ বোপনের পদ্ধতি অনুসরণ করে বীজ বীজতলা তৈরি করা হয়েছিল। কিন্ত নি¤œমানের বীজের কারণে বীজে টেক না আসাই তারা আর বীজ ফেলতে পারিনি। ফলে তারা আর্থিক ভাবে ক্ষতির পাশাপাশি সময় নষ্ট হয়েছে। তাই সাজ্জাদ-হাসান সীডের বিরেুদ্ধে ব্যবস্থাগ্রহন ও তদন্ত করে ক্ষতিপুরণের দাবি জানিয়েছেন।

 

তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা সাদিপুর গ্রামের কৃষক ও কাউন্সিলর আমির হোসেন আমিন জানান,মুন্ডুমালা বাজারে এক ডিলালের কাছে সাজ্জাদ সীড এর ১০ কেজি ওজনের ৬০০টাকা দরে ২৪ ব্যাগ বোরো(জীরা জাতের)বীজ কেনেন।তাদের পরামর্শ অনুযায়ী সে বীজগুলো টেকানোর জন্য জাগ দেয়া হয়।কিন্ত জাগ দেয়ার পরেও তার বীজে টেক নেয়নি।ফলে তার বীজের ১৪ হাজার টাকার সাথে ক্ষেতে হাল চাষসহ ২০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়,সাথে সময়ও নষ্ট হয়েছে। এব্যাপারে স্থানীন কৃষি কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করা হয়েছে সাজ্জাদ সীডের নামে। কিন্ত ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি তানোর কৃষি বিভাগ।

 

একই গ্রামের কৃষক উজির জানান,গত ১৫ দিন আগে তিনি এক ব্যাগ ১০ কেজি সাজ্জাদ সীডের বীজ কেনে টেকানোর জন্য জাগ দিয়েছিলেন।  ৫ দিনেও তার ধানে টেক আসেনি।অবশেষে সে ধানগুলো গরুকে খাওয়াই দিয়েছেন।

খবর২৪ঘন্টা /এম কে

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।