ঢাকাশুক্রবার , ২২ জুলাই ২০২২
                     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অবিলম্বে অধ্যাপক মোর্শেদের বাসা ছাড়ার অগ্রহণযোগ্য নোটিশ প্রত্যাহারের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
জুলাই ২২, ২০২২ ৭:৫৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

অবিলম্বে অধ্যাপক মোর্শেদের বাসা ছাড়ার অগ্রহণযোগ্য নোটিশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন।

শুক্রবার (২২জুলাই) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে গভীর উদ্বেগের সাথে জানানো হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংগঠন ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর মহাসচিব প্রফেসর ড. মোর্শেদ হাসান খান কে ভিন্নমত পোষনের কারণে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাঁর আবাসিক বাসা ছাড়ার নোটিশ প্রদান করেছে। এই ন্যাক্কারজনক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

২০১৮ সালের ২৬ মার্চ একটি জাতীয় দৈনিকের স্বাধীনতা দিবস সংখ্যায় ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি নিবন্ধনকে কেন্দ্র করে সম্পুর্ন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ২০২০ সালের ৯ সেপ্টেম্বর সিন্ডিকেটের এক সিদ্ধান্তে প্রফেসর ড. মোর্শেদ হাসান খানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় যা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা। আমরা মনে করি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৭৩ এর অধ্যাদেশ অনুযায়ী প্রত্যেক শিক্ষকের গনতন্ত্র-চর্চার অধিকার এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে।

রাবি জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের দাবি প্রফেসর মোর্শেদের বিরুদ্ধে ঢাবির এই অবস্থান এই অধ্যাদেশের লঙ্ঘন এবং এই প্রতিষ্ঠানের গৌরবজ্জল ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে ভুলুন্ঠিত করেছে। চাকুরীচ্যুতির বিষয়টি সুরাহার জন্য প্রফেসর মোর্শেদ উচ্চ আদালতের স্মরণাপন্ন হয়েছেন যা এখনও বিচারাধীন রয়েছে। উচ্চ আদালতে বিচারাধীন একটি বিষয়ের চূড়ান্ত নিস্পত্তির আগেই তাঁকে বাসা ছাড়ার নোটিশ প্রদান অগ্রহণযোগ্য এবং
অমানবিক বলে আমরা মনে করেন।

উল্লেখ্য প্রফেসর মোর্শেদ তাঁর ক্যানসার আক্রান্ত স্ত্রী ও অবুঝ শিশু কন্যাকে নিয়ে উক্ত বাসায় অবস্থান করছেন।

জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর পক্ষ থেকে প্রফেসর ড. মোর্শেদের বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বিধি-বহির্ভূত ও অন্যায়ভাবে গ্রহণ করা এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং বাসা ছাড়ার এই অমানবিক নির্দেশ প্রত্যাহার করার জোর দাবী জানান।
বিএ/

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।