সবার আগে.সর্বশেষ  
ঢাকামঙ্গলবার , ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শিক্ষক না কসাই!

অনলাইন ভার্সন
ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭ ৮:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পাবনা ব্যুরো:  কোমলমতী শিক্ষার্থীদের কোচিং-এ আটকিয়ে রেখে কোচিং এর টাকা আদায়ের অভিনব ঘটনা ঘটেছে পাবনা শহরের কসাইপট্টি গলির আদ্যনাথ কোচিং সেন্টারে। বেতন বাকি থাকায় কোমলমতী শিক্ষার্থীদের প্রায় ২ ঘন্টা কোচিং সেন্টারে রেখে দেয়া হয়।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর অভিভাবক শহীদ এম. মনসুর আলী কলেজের শিক্ষক আমিনুল ইসলাম জানান, সোমবার ছিল পাবনা সরকারি স্কুলে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারি শিক্ষার্থীদের সমাপনী ক্লাশ। কোচিং সেন্টার থেকে আমার মেয়ে ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফসানা সুলতানা লাবণী বাসায় না ফেরায় দুচিন্তাগ্রস্থ হয়ে কোচিং সেন্টারে খবর নিয়ে জানতে পারি আমার শিশুকে বেতন এর জন্য কোচিং-এ রেখে দেয়া হয়েছে। আমি কোচিং-এ গিয়ে মাসের এখনও বাকি থাকায় ৫০০টাকা দিতে চাইলে আদ্যনাথ কোচিং সেন্টারের কর্ণধার আদ্যনাথ ঘোষ ৮০০টাকা দাবি করেন। অবশেষে তাকে বাধ্য হয়ে ৮০০ টাকা দিয়ে সন্তানকে বাসায় নিয়ে আসি।
তার মতো আরও কয়েকজন অভিভাবক এরকম পরিস্থিতির শিকার হয়ে বলেন, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শ্রী আদ্যনাথ ঘোষ শিক্ষক না কসাই! এদিকে ঘটনাটি নিয়ে ফেসবুকে নিন্দ্রার ঝড় ওঠে।
অপরদিকে প্রশাসনের নাকের ডগায় একজন সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক হয়ে আদ্যনাথ ঘোষ কিভাবে কোচিং সেন্টার পরিচালনা করেন, তা নিয়ে শহরের আলোচনার ঝড় উঠেছে।

খবর২৪ঘণ্টা.কম/রখ

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।