ঢাকারবিবার , ৩ ডিসেম্বর ২০১৭
                     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কৌটা ভেবে ককটেল ছোট করতে গিয়ে ফেরিওয়ালা হাসপাতালে

admin
ডিসেম্বর ৩, ২০১৭ ২:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিশেষ প্রতিবেদক :
প্রতিদিনের মতো ফেরিওয়ালা কাজল নিজ ব্যবসার কাজে গ্রামে গ্রামে ঘুরছিলেন। ফেরি করতে করতে এক সময় কাজল ধাইনগর শিরটোলা গ্রামে পৌঁছে যান। সেই গ্রামের বদল আলীর ৭ বছরের অবুঝ শিশু বাড়িতে রাখা ৪টি ককটেল টিনের কৌটা মনে করে শনপাপড়ী খাওয়ার জন্য ফেরিওয়ালার কাছে নিয়ে যায়। ফেরিওয়ালা ককটেলগুলো লোহার বাটখারা দিয়ে ছোট করতে গিয়ে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ককটেলটি বিস্ফোরিত হয়ে যায়। এতে ওই ফেরিওয়ালা গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। গতকাল শনিবার বিকেল ৪টার দিকে িএ ঘটনা ঘটে।

 

ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ পেয়ে তাৎক্ষণিক বদল বাইরে এসে বাকি ৩টি ককটেল বাড়ি নিয়ে গিয়ে টয়লেটের মধ্যে লুকিয়ে রাখে। ততক্ষণে পাড়ার লোকজন ছুটে র‌্যাবকে খবর দিয়ে আহত ফেরিওয়ালাকে উদ্ধার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। আহত ফেরিওয়ালা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার চৌডালা বুলটুংগি গ্রামের তারাবুলের ছেলে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে দুষ্কৃতিকারি বদল আলীকে গ্রেফতার করে।

র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হওয়া বদল অালী। ছবি: র‌্যাব-৫
র‌্যাব-৫ রাজশাহী থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ককটেল বিস্ফোরণ হতে দেখে এলাকাবাসী খবর দিলে বদলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে ৩টি ককটেল সহ গ্রেফতার করা হয়। তবে বদল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল।

র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয় জিজ্ঞাসাবাদে বদল জানায়, অসৎ উদ্দেশ্যে সে ককটেলগুলো বাড়িতে এনে রেখেছিল। কিন্ত তার অবুঝ শিশুর ভুলের জন্য পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। র‌্যাবের হাত থেকে বাঁচার জন্য ককটেলগুলোকে সে টয়লেটের মধ্যে ফেলে দিয়েছিল। র‌্যাবের ৪ সদস্যের ককটেল নিষ্ক্রিয়কারি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ককটেলগুলো উদ্ধার করে। তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় বলে আরো জানানো হয়েছে।

 

খবর২৪ঘণ্টা/এমকে

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।